ফেইসবুক Ad Analytics: কোন metrics-গুলো সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ?

একবার tracking pixel ঠিক করা পর আপনি আপনার ক্যাম্পেইন দক্ষতার (performance) উপর ডাটা পেতে থাকবেন। তবে, পরবর্তী পদক্ষেপ ঠিক করার জন্য আপনি এই ডাটাগুলো কিভাবে ব্যবহার করবেন? আমরা Facebook এবং Teespring analytics ফোকাস করে শুরু করবো। এই analytics-গুলোর সংখ্যা যাচাইয়ের মাধ্যমে আমাদেরকে কিছু কার্যকর ধারণা পাবো এবং আমরা বিভ্রান্তিকর ডাটা এড়াতে পারবো। মনে রাখবেন, অনেক top sellers তাদের ad’s performance সংরক্ষণ করতে ডাটাগুলো আলাদা এক্সেল শীটে সাজিয়ে রাখে এটার মত করে। আপনি যদি আমাদের Teespring Analytics চেক না করে থাকেন তাহলে এখনই চেক করে নিন।

fb-ads-analytics

Click to zoom

Facebook Analytics

ধরুন আপনি আপনার গ্রাহকদের (audience) টার্গেট করে গতকাল বিকেল ৩টায় ফেইসবুক এড(Ad) শুরু করেছেন। আপনি প্রতিদিনের জন্য ২০$ বাজেট করলেন, এবং সকালে ১০$ খরচ করবেন। এই ওয়েবসাইটে www.facebook.com/ads/manager যান, এবং আপনি যে ad নিয়ে পরীক্ষা (analyze) চালাতে চান সেটিতে ক্লিক করুন। মনে রাখবেন, রিপোর্টে আরো বেশী metrics যুক্ত করতে আপনাকে “customize columns”-এ ক্লিক করতে হতে পারে।

নিচের metrics গুলোতে আপনাকে বিশেষ নজর দিতে হবেঃ

  • Relevance score: এটি হল ১ থেকে ১০ এর মধ্যে একটি রেটিং যা আপনার গ্রাহক আপনার অ্যাডে (ad) কিভাবে সাড়া দিচ্ছে সেটির উপর ভিত্তি করে তৈরী। আপনার স্কোরই বলে দিবে আপনি টার্গেটিং এর ক্ষেত্রে কি পরিমাণ সফল। আপনি যদি ঠিক গ্রাহক (যারা আপনার অ্যাডে বেশী সাড়া দেয়) টার্গেট করতে পারেন, আপনার relevance score হবে ৯/১০ অথবা ১০/১০। কিন্তু যদি স্কোর ৭/১০ হয়, আপনি চাইবেন আপানার টার্গেটিং –এ রিভিজিট করতে এবং গ্রাহকদের আগ্রহের জায়গাটাকে (audience’s interests)আপডেট করতে কারণ কম স্কোর আপনার ad’s performance-এ নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে।
  • Results: আপনি কি ধরণের অ্যাড পছন্দ করেছেন সেটির উপর নির্ভর করে আপনার অ্যাডের লক্ষ্য ভিন্ন হবে। আপনার লক্ষ্য যদি গোপনীয় থাকে, তবে এটি ‘Results’ –এ ‘Conversion’ হিসেবে দেখাবে (যেমন-আপনার PPE ad এর লক্ষ্য হল “engagement” সুতরাং like, share, comment করুন)। ফেইসবুক আপনাকে প্রকৃত সেলের যে ‘Conversion’ দেখাবে সেটা নিয়ে বিভ্রান্ত হবেন না (Website Conversion Ads ছাড়া, যেখানে ad goal হল প্রকৃত conversion, যেমন- sale)।
  • Facebook Pixel: আমরা আগেই Facebook Pixel ইন্সটল করেছি অ্যাডে (ad) এবং আমাদের Teespring account–এ। Facebook Pixel দিয়ে শেষ হওয়া ফিল্ডগুলো আপনাকে জানিয়ে দিবে ফেইসবুক কি কার্যক্রম রেকর্ড করেছে। তাই একজন ক্রেতা যদি আপনার অ্যাডে(ad) ক্লিক করে এবং ক্যাম্পেইন পেইজ দেখে সেটি ‘View Content (Facebook Pixel)’ এর অধীনে রেকর্ড হবে। যদি অ্যাডের(ad) মাধ্যমে কোন ক্রেতা আসে এবং পণ্য ক্রয় করে তবে সেটি ‘Purchase (Facebook Pixel)’ এর অধীনে অন্তর্ভূক্ত হবে। এভাবে আপনি অ্যাড(ad)থেকে দেখতে পারবেন আপনার ক্যাম্পেইন পেইজের ভিজিটরের সংখ্যা এবং সাথে আপনি কতগুলো অর্ডার পেয়েছেন সেটি।
  • Cost: “Cost” সেকশনটি নির্ধারিত হয় আপনি কি ধরণের ad নির্বাচন করেছেন তার উপর এবং আপনি আপনার ad’s objective অর্জন করার জন্য যে টাকা পরিশোধ করেছেন সেটিরও গড় দেখাবে (যেমন- engagement, click through or purchase)।
  • Reach: আপনার গ্রাহকদের কতজন আপনার ad দেখেছে সেটি হল reach।
  • Frequency: আপনার গ্রাহকরা কতক্ষন ধরে ad-টি দেখেছে সেটি হল frequency। আপনার frequency-এর লক্ষ্য হওয়া উচিত ১.৫ বা এর নিচে। আপনি একই ক্রেতাকে একই ad বার বার দেখান, এটি টাকার অপচয় ছাড়া আর কিছুই নয়। যদি প্রথমে একবার দেখে তারা কোন প্রতিক্রিয়া না দেখায় তাহলে পরে আবার দেখে কিছু করে সে আশা না করাই ভাল।
  • Click-Through Rate (CTR): আপনার ad-এর মান কেমন হয়েছে সেটি বুঝার জন্য CTR একটি গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশক। এটির মাধ্যমে আপনি বুঝতে পারবেন ad-টি যতজনকে দেখানো হয়েছে এবং তাদের মধ্যে কতজন সেটিতে ক্লিক করেছে। আপনার CTR কমপক্ষে ৪% থাকা উচিত। সবচেয়ে ভাল CTR হল ৮% অথবা এর বেশী। যদি CTR কম হয় তাহলে বুঝতে হবে আপনার ইমেজ অথবা মেসেজ অতটা আকর্ষনীয় হয় নি, এবং টার্গেট গ্রাহকদের জন্য ডিজাইনটি উপযুক্ত না, অথবা টার্গেটিং ঠিক হয় নি।
  • Amount Spent: এটি হল ad এর উপর কি পরিমাণ অর্থ ব্যয় করা হয়েছে তার পরিমাণ যা বিনিয়োগের উপর কি পরিমাণ লাভ (Return on Investment -ROI) আসবে সেটি হিসেব করতে প্রয়োজন হয়। আপনার মোট খরচের সাথে সম্পর্কিত সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশকের দুটি হল Return on Investment (ROI) এবং আপনার net profit। এই values (আপনার ad যাওয়ার যোগ্য কি যোগ্য না) হিসেব করার জন্য আপনাকে Teespring Analytics-এ গিয়ে আপনার ক্যাম্পেইন থেকে কি পরিমাণ লাভ করেছে সেটি দেখতে হবে।

Click to zoom

ভুলে যাবেন না যে আপনি “Customize Columns” –এ ক্লিক করে রিপোর্টে অন্যান্য metrics-ও যোগ করতে পারবেন। Customize Button- এর পরেরটিকে বলে “Breakdown” যেখানে আপনি ডাটাগুলো দেশ, বয়স, লিঙ্গ, ad placement ইত্যাদি অনুযায়ী ভাগ করে সিলেক্ট করতে পারবেন। এটি আপনাকে প্রত্যেক গ্রুপের (যেমন- প্রত্যেক দেশের জন্য CTR, ওয়েবসাইট ক্লিকস বিভিন্ন বয়সের জন্য, ইত্যাদি) জন্য আলাদা করে সকল নির্দেশকগুলো দেখাবে। এটা আপনাকে আরো ধারণা দিবে যে কোন দেশগুলো, কোন বয়সের লোকেরা, ছেলে না নাকি মেয়েরা সবচেয়ে ভাল সাড়া দিচ্ছে (যেমন- high CTR, more checkouts, lots of website clicks) যাতে আপনি ভবিষ্যতে আপনার টার্গেটিং ঠিক করতে পারেন।

এখন কি করনীয়?

এখন আপনি ad analytics বুঝে গেলেন। তাহলে এখনই সময় ডাটা তৈরী করা এবং সিদ্ধান্ত নেয়া আপনি কি আপনার ক্যাম্পেইন বাড়াতে চান নাকি ad-কে অকেজো করতে চান। আরো তথ্যের জন্য আমাদের পরের সেকশনে আমন্ত্রণ।

creator-menu

youtube-menu